জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান, রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!

ধারাবাহিকের জগতে নানান রকম সিরিয়াল এসেছে। বহু ধারাবাহিক সময়ের সঙ্গে বিদায়ও নিয়েছে। কিছু ধারাবাহিক থাকে যেগুলো দর্শকদের মনে বিশেষভাবে দাগ কাটে, পর্দা থেকে বিদায় নিলেও দর্শকদের মনে বিশাল জায়গা নিয়ে থাকে। শেষ হওয়ার পরেও অনেক ধারাবাহিক মনে রয়ে যায় ।

Image 197, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান,রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান, রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!

তেমনই এক ধারাবাহিক হল সুবর্ণলতা। যা আশাপূর্ণা দেবী রচিত উপন্যাস অনুসারে ধারাবাহিকটি সম্প্রচারিত হয়েছিল জি বাংলা চ্যানেলের পর্দায়। উপন্যাসের কাহিনী ধারাবাহিকে জীবন্ত হয়ে উঠেছিল অভিনেত্রী অনন্যা চ্যাটার্জীর সংস্পর্শে। তাঁর অভিনয়ের দৌলতে দর্শকদের ঘরে ঘরে ধারাবাহিকটিকে পৌঁছে গেছিল।

Image 198, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান,রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান, রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!

অনন্যা চ্যাটার্জীকে সুবর্ণলতা’ ছাড়াও একাধিক সিনেমা, টেলিফিল্ম ও ধারাবাহিকে অভিনয় প্রদর্শন করতে দেখা যায়। তাঁকে শেষবারের মতো দেখা যায় বুদ্ধদেব দাশগুপ্তের ‘টোপ’ সিনেমায় এবং তাঁর শেষ অভিনীত ধারাবাহিক ছিল ‘জয় কালী কলকাত্তাওয়ালী’ । কিন্তু এই তারকা অভিনেত্রী প্রাপ্য গুরুত্ব না পেয়ে যেন এখন জীবন আকাশের কোনো কোণে হারিয়ে গেছেন। তাঁকে আর কোনো ধারাবাহিকে বা সিনেমায় দেখতে পাওয়া যায় না।

Image 199, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান,রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!, জাতীয় পুরস্কার পেলেও টলিউডে মেলেনি যোগ্য সম্মান, রাতারাতি অভিনয় ছেড়ে কোথায় হারিয়ে গেলেন ‘সুবর্ণলতা’!

অভিনয়ে একজন দক্ষ শিল্পী অনন্যা। অভিনয়ের নিপুণতার জন্যই পেয়েছিলেন জাতীয় পুরস্কারও। কিন্তু আজকাল অভিনয়ের জগতে তাঁর তেমন দেখতেই পাওয়া যায় না। এই অভিনেত্রীকে ২০২১ সালে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় ও বিপুল পাত্র অভিনীত ‘মোহমায়া’ ওয়েব সিরিজেও দেখা যায়। তবে এর আগে তাঁকে দীর্ঘ ৪ বছর অভিনয় জগৎ থেকে দূরত্ব বজায় রাখতে দেখা গেছিল।

‘টক ঝাল মিষ্টি’ নামক সিনেমার হাত ধরে ২০০২ সালে তাঁর অভিনয় জগতে অভিষেক হয়। তিনি জাতীয় পুরস্কার পান ‘আবহমান’ সিনেমার দৌলতে। জাতীয় স্তরের পুরস্কার তাঁর ঝোলায় থাকলেও টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে প্রাপ্য গুরুত্ব পাওয়া থেকে বঞ্চিত ছিলেন তিনি। তিনি সিদ্ধান্ত নেন টেলিভিশনের পর্দায় আবার ফিরে আসার।

Leave a Comment